নাসিরনগরে কাজের মেয়েকে ধর্ষন প্রজাবন্ধু: ডেস্ক॥   | ২২ এপ্রিল ২০১৫ | সময়ঃ ৬:৪২ অপরাহ্ণ
rape

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার চাতলপাড় ইউনিয়নের ফুলকারকান্দি গ্রামে কাজের মেয়েকে ধর্ষন করেছে এক পাষন্ড। ঐ ঘটনায় কিশোরী কাজের মেয়ের বাবা  বাদী হয়ে ধর্ষককে আসামী করে নাসিরনগর থানায় একটি মামলা রুজু করেছে। থানা পুলিশ, মামলা ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে ফুলকারকান্তি গ্রামে মোঃ ইব্রাহিম মিয়ার কিশোরী মেয়ে ছখিনা (১৪) ছদ্মনাম। সে ঢাকা বাসায় থেকে ঝিয়ের কাজ করত। ঘুজিয়াখাইল গ্রামে তার বড় বোনকে বিয়ে দেয়। বড়বোনের বাড়িতে আসা যাওয়ার সুবাধে পরিচয় হয় ওই গ্রামের আতাব উল্লাহর বখাটে ছেলে কাউছার মিয়া (২২) এর সাথে। পরিচয়ের সূত্রধরে ছখিনার মোবাইল নম্বর নেয় কাউছার। তার পর থেকে  দুজনের মধ্যে কথা বলাবলি শুরু হয়। এক পর্যায়ে দুজনের কথা বলা প্রেম পর্যন্ত গড়ায়। ১৯ এপ্রিল বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ছখিনাকে ঢাকা থেকে ফোন করে নিয়ে আসে কাউছার। রাতে কাউছারের নিজ ঘরে ছখিনাকে প্রথমবার ধর্ষন করে। পরে বাড়ির অদুরে খোলা মাঠে নিয়ে কাউছার রাতভর পালাক্রমে ধর্ষন করে ছখিনাকে।  ছখিনা কাউছারকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে ছখিনাকে রেখে সে পালিয়ে যায়। নিরুপায় হয়ে ছখিনা তার তার মা বাবাকে ওই ঘটনা জানায়। পরে ছখিনার বাবা বাদী হয়ে কাউছারকে আসামী করে ২২ এপ্রিল নাসিরনগর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা রুজু করে।  মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কাজী জাহাঙ্গীর আলমের সাথে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ভিকটিমের ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন করতে তাকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানান।

এখানে আপনার মন্তব্য করতে পারেন

টি মন্তব্য

পড়া হয়েছে 1695 বার

এই বিভাগের আরও খবর

    আর্কাইভ

    প্রজাবন্ধু ফেসবুক ফ্যান পেজ