জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর সদস্যদের ভূমিকা সারাবিশ্বের মানুষের কাছে প্রশংসিত পুলিশ মেমোরিয়াল ডে অনুষ্ঠানে মোকতাদির চৌধুরী এম.পি স্টাফ রিপোর্টার   | ০২ মার্চ ২০১৭ | সময়ঃ ৬:৫৩ অপরাহ্ণ
200

পার্বত্য চট্টগ্রাম মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি, বিশিষ্ট লেখক, বীর মুক্তিযোদ্ধা র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এম.পি বলেছেন, পুলিশ বাহিনীর সদস্য স্বাধীন বাংলাদেশ সৃষ্টির প্রথম প্রতিরোধ যুদ্ধে অপরিসীম সাহস আর বীরত্বের দিয়েছেন। বাঙ্গালী জাতি চিরকাল তাদের আত্মত্যাগ আর সাহসের কথা শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করবে। তিনি আরো বলেন, বিএনপি-জামাতেন আগুন সন্ত্রাস আর নারকীয় কায়দয় মানুষ হত্যার অপতৎপরতা প্রতিরোধে পুলিশের অনেক সদস্যকে প্রাণ দিতে হয়েছে। হলি আর্টিসান ও শোলাকিয়া সহ বিভিন্ন জঙ্গী বিরোধী অভিযানে পুলিশের ভূমিকা বাংলাদেশের মানুষকে সাহস যুগিয়েছে। জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর সদস্যদের ভূমিকা সারাবিশ্বের মানুষের কাছে প্রশংসিত হয়েছে। পুলিশের ব্যাপক তৎপরতার কারণে  দেশের সার্বিক শান্তি-শৃঙ্খলার ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। রাজনৈতিক সদিচ্ছা আর পুলিশের তৎপরতার একসাথে থাকলে সমাজ ও রাষ্ট্রের ক্ষতি কেউ করতে পারবে না। তিনি আরো বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুলিশ বাহিনীকে আধুনিক ও যুগোপযোগী করে গড়ে তুলছেন। পুলিশ সদস্যদের মান-মর্যাদা বৃদ্ধির জন্য শেখ হাসিনার সরকার ব্যাপক কর্মসূচী বাস্তবায়ন করছেন। তিনি আরো বলেন, আমরা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কোনো অপরাধীকে প্রশ্রয় দেই না, কোনোদিন দেবোও না। পুলিশ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নির্দ্বিধায় – নির্ভয়ে সকল কর্মকান্ড পরিচালনা করছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মানুষ পুলিশের ব্যাপক তৎপরতায় স্বস্থিতে আছে। তিনি গতকাল বুধবার বিকালে জেলা পুলিশের আয়োজনে পুলিশ মেমোরিয়াল ডে উপলক্ষে এক ঐতিহাসিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। এ উপলক্ষে পুলিশ লাইনস মঞ্চে আলোচনা সভা, বিভিন্ন সময় রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব পালনকালে বীর শহীদ পুলিশ সদস্যদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে স্মৃতিস্তম্ভে ফুলেল শ্রদ্ধা জ্ঞাপন ও শহীদ পরিবারের সদস্যদের সম্মাননা প্রদানের আয়োজন করা হয়। পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান পিপিএম (বার) এর সভাপতিত্বে ও আবৃত্তিশিল্পি মো. মনির হোসেনের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক রেজওয়ানুর রহমান, পৌর মেয়র মিসেস নায়ার কবীর, জেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার। বক্তব্য রাখেন র‌্যাব ভৈরব ক্যাম্পের কমান্ডার মেজর নাজমুল আরেফিন পরাগ, পিবিআই এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আবদুল হান্নান ও পুলিশের শহীদ পরিবারের সদস্য পুলিশ পরিদর্শক আবদুল করিম সরকারের স্ত্রী সুফিয়া খাতুন। শহীদ পুলিশ সদস্যদের মাগফেরাত কামনায় মোনাজাতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটে। এসময় জেলার বিশিষ্ট রাজনীতিবীদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা, ব্যবসায়ী, সাংবাদিক, শিক্ষক সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

এখানে আপনার মন্তব্য করতে পারেন

টি মন্তব্য

পড়া হয়েছে 373 বার

এই বিভাগের আরও খবর

    আর্কাইভ

    সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

    প্রজাবন্ধু ফেসবুক ফ্যান পেজ