দু’দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে ওসিসহ ৩০ জন আহত সরাইলে ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে   | ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | সময়ঃ ৮:০৭ অপরাহ্ণ

ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামের লোকদের মধ্যে সংঘর্ষে পুলিশসহ ৩০ জন আহত হয়েছেন। গত সোমবার দুপুরে জেলার সরাইল উপজেলা সদরের মোঘলটুলা ও চাঁনমনিপাড়া গ্রামের বাসিন্দাদের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। টানা এক ঘণ্টা পর ব্যাপক লাঠিপেটা ও রাবার বুলেট ছুড়ে পুলিশ পরিস্থিতি শান্ত করে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সকাল থেকে উপজেলা সদরের সরাইল অন্নদা সরকারি উচ্চবিদ্যালয় মাঠে মোঘলটুলা ও চাঁনমনিপাড়া গ্রামের একদল কিশোর ক্রিকেট খেলছিল। দুপুর ১২টার দিকে খেলা নিয়ে মাঠের দর্শকসারিতে থাকা মোঘলটুলা গ্রামের মোহন মিয়ার (১৬) সঙ্গে চাঁনমনিপাড়া গ্রামের আরমান মিয়া (১৭) ও সারোয়ার হোসেনের (১৬) বাগ্?বিতণ্ডা ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।
এই ঘটনার জের ধরে কিছুক্ষণ পর উভয় পক্ষের লোকজন দা, বল্লম ও লাঠিসোঁটা নিয়ে দুই গ্রামের মাঝের সড়কে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ব্যাপক লাঠিপেটা ও সাতটি রাবার বুলেট ছোড়ে। এ সময় ইটপাটকেলের আঘাতে সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রূপক কুমার সাহার ডান হাত জখম হয়। তাঁকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।
সংঘর্ষে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে ১২ জনকে সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। অন্যদের জেলা সদরের বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।
সরাইল থানার পরিদর্শক (ওসি) রূপক কুমার সাহা জানান, ‘ঘটনার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। এ ব্যাপারে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করা হয়েছে।’

এখানে আপনার মন্তব্য করতে পারেন

টি মন্তব্য

পড়া হয়েছে 26 বার

এই বিভাগের আরও খবর

    আর্কাইভ

    প্রজাবন্ধু ফেসবুক ফ্যান পেজ